• শিরোনাম

    ৯৫ বছর বয়সের বৃদ্ধা ছকিনা ছেলে বৌ এর কোলে চড়ে ভোট দিলেন

    | ২৮ ডিসেম্বর ২০১৭ | ১:৫৪ অপরাহ্ণ

    ৯৫ বছর বয়সের বৃদ্ধা ছকিনা ছেলে বৌ এর কোলে চড়ে ভোট দিলেন

    ৯৫ বছর বয়সের বৃদ্ধা ছকিনা ছেলে বৌ এর কোলে চড়ে ভোট দিলেন
    ইঞ্জিনিয়ার আখতার রহমান,রাজশাহী প্রতিনিধিঃ
    আজ ২৮ ডিসেম্বর রাজশাহীর বাঘা পৌরসভার নির্বাচন সুষ্ঠ,সুন্দর, নিরপেক্ষ ও কোন অপ্রীতিকর ঘটনা ছাড়াই একটানা সকাল ৮ টা থেকে বিকেল ৪ টা পর্যন্ত ভোট গ্রহন শেষ হয়েছে। ছকিনা বেওয়া নামে ৯৫ বছর বয়সের ্েক বৃদ্ধা তিনি ভোট দিয়েছেন উৎসব মুখর পরিবেশে।

    ছেলের বৌ সাবিনা খাতুনের কোলে চড়ে রাজশাহীর বাঘা পৌর নির্বাচনে ভোট দিতে এসেছিলেন তিনি। পৌরসভার কালিদাসখালী উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে ভোট দিতে এলে কথা হয় তার সাথে।
    তিনি জানান, জীবনে এই বয়সে এসে ভোট দিতে পেরে নিজেকে আনন্দিত মনে করেছেন তিনি। কারন হিসেবে বলেন, এই বয়সে ভোট দিতে পারব এমনটা আশা করিনি। তার বাড়ি পৌরসভার ৩ নম্বর ওয়ার্ডের কলিগ্রাম মহল্লায়। স্বামী মৃত গফুর মোল্লা।

    মারা গেছে ২০ বছর আগে। জাতীয় ও স্থানীয় নির্বাচনে কতবার ভোট দিয়েছেন তা বয়সের ভারে জানাতে পারেনি ছকিনা বেওয়া নামের এই বৃদ্ধা। ছকিনা বেওয়ার দুই ছেলে ৭ মেয়ে। তাদের অনেক আগেই বিয়ে দিয়েছেন। আর এভাবে ভোট দেওয়ার সৌভাগ্য আসবে না বলেও হতাশা প্রকাশ করেন তিনি।
    যে কোন সময় সৃষ্টি কর্তা নিয়ে নিবে। গতকাল বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১২টার দিকে বাঘা পৌরসভার ৩ নম্বর ওয়ার্ডের কালিদাসখালী উচ্চবিদ্যালয়ে ছেলের বৌ সাবিনা খাতুনের কোলে চড়ে ভোট দিতে আসেন। এই ওয়ার্ডে মোট ভোটার সংখ্যা তিন হাজার ১৮৭।
    এছাড়া চকছাতারি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোট কেন্দ্রে সলেমান নামের ১০৫ বছর বয়সের এক বৃদ্ধ তার ছেলে বৌ হিরা খাতুনের কোলে চড়ে ভোট দিতে আসেন। এই সময় তিনি বলেন, দীর্ঘ এক যুব পর বাঘা পৌরসভার নির্বাচনে ভোট দিতে পারব এটা ভাবিনী। তবে ভোট দিতে পেরে ভালো গাগছে। এই কেন্দ্রে ভোটার সংথ্যা এক হাজার ৮১১।
    অপর দিকে ৫ নম্বর ওয়ার্ডেও গাওপাড়া মাদ্রাসা কেন্দ্রে শুকজান বেওয়া উত্তর গাওপাড়া গ্রামের মৃত ওয়াহেদ প্রামানিকের স্ত্রী নাতী জুয়েল রানার সাথে ভোট দিতে আসনে। এই সময় দায়িত্বরত আনসার সদস্য সাগর আলীর কোলে চড়ে নিজের ভোট নিজে দেন। এই ওয়ার্ডে ভোটার সংখ্য তিন হাজার ৩৮২। এছাড়া জুলেখা বেওয়া নামের ১০৫ বছর বয়সে চকনারায়ন পুর ভোট কেন্দ্রে ভোট দিতে আসেন। তিনি তার নাতী বৌ লতার কলে চড়ে ভোট দিতে আসেন। এই কেন্দ্রে ভোটার সংখ্যা তিন হাজার ৩৩৩। তার বাড়ি চক আহম্মেদ পুর মৃত রইমুদ্দিনের স্ত্রী। এমনি দৃশ্য চোখে পড়ে ভোট কেন্দ্র পরির্শন করতে গিয়ে গতকাল বৃহস্পতিবার এই প্রতিবেদকের।

    webnewsdesign.com

    Leave a comment

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১
    ১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
    ১৯২০২১২২২৩২৪২৫
    ২৬২৭২৮২৯৩০  
    বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডে চাকরি
    বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডে চাকরি