• শিরোনাম

    ১৭০ রানে থামলো জিম্বাবুয়ে

    | ১৫ জানুয়ারি ২০১৮ | ৯:৪০ পূর্বাহ্ণ

    ১৭০ রানে থামলো জিম্বাবুয়ে

    ১৭০ রানে থামলো জিম্বাবুয়ে

    ১৭০ রানে থামলো জিম্বাবুয়েশুরুটা করেছিলেন সাকিব, শেষটা করলেন মোস্তাফিজ। মাঝে উইকেটের দেখা পেলেন মাশরাফি, সানজামুল ও রুবেলরা। বাংলাদেশি বোলারদের দাপটে শেষ পর্যন্ত ১৭০ রানেই থেকে গেছে জিম্বাবুয়ের ইনিংস।

    টস হেরে ব্যাট করতে নেমে ইনিংসের দ্বিতীয় বলেই সাজঘরে ফেরেন মিরে। সাকিবের লেগ স্টাম্পের বাইরের বল গ্ল্যান্স করতে গিয়ে পা চলে আসে ক্রিজের বাইরে। বল ধরে চোখের পলকে বেলস ফেলে দেন মুশফিক। এক বল ব্যবধানে উইকেট পড়ে আরও একটি। বাঁহাতি ব্যাটসম্যান ক্রেইগ আরভিনকে সাব্বিরের তালুবন্দি করে সাজঘরে ফেরান সাকিব।

    সাকিবের জোড়া আঘাতের পর টেলরকে সঙ্গে নিয়ে ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা করছিলেন অভিজ্ঞ হ্যামিলটন মাসাকাদজা। তবে তাকে খুব বেশি সময় উইকেটে থাকতে দিলেন টাইগার অধিনায়ক মাশরাফি। নিজের দ্বিতীয় ওভারেই মুশফিকের তালুবন্দি করে সাজঘরে ফেরত পাঠিয়েছেন ডানহাতি এই ব্যাটসম্যানকে।

    মাসাকাদজার পর জিম্বাবুয়ের আরেক অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান ব্রেন্ডন টেলর সাজঘরে ফেরান মোস্তাফিজ। কাটার মাস্টারের বলে কট বিহাইন্ড হয়ে ফিরে যান এই জিম্বাবুইয়ান। সাকিব আল হাসানের সঙ্গে মিলে মাশরাফি এবং মোস্তাফিজও যখন জিম্বাবুয়ে ব্যাটসম্যানদের চেপে ধরার কাজটি দারুণভাবে সম্পন্ন করছেন, তখন তাদের সঙ্গে যোগ দিলেন সানজামুল ইসলামও। পঞ্চম উইকেট হিসেবে সানজামুলের বলে বিদায় নিলেন ম্যালকম ওয়ালার।

    webnewsdesign.com

    অফ স্ট্যাম্পের উপর বল রেখেছিলেন সানজামুল। কাট করার চেষ্টা করেছিলেন ওয়ালার। কিন্তু বল চলে গেলে ব্যাটের কানায় লেগে প্রথম স্লিপে। অসাধারণ ক্যাচ ধরলেন সাব্বির রহমান। ১৩ রান করে ফিরলেন ওয়ালার।

    দ্রুত পাঁচ উইকেট হারানোর পর এক প্রান্ত ধরে জিম্বাবুয়েকে এগিয়ে নিচ্ছিলেন সিকান্দার রাজা। বিপিএলে খেলার অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগিয়ে পেয়েছিলেন হাফসেঞ্চুরির দেখা। তবে ইনিংসটাকে আর বেশি বড় করতে পারলেন না। দ্রুত রান নিয়ে গিয়ে মুরের সঙ্গে ভুল বোঝাবুঝিতে সাকিবের থ্রোতে উইকেটে পৌঁছানোর আগেই স্ট্যাম্প ভেঙে দিলেন মুশফিক। ফলে ৫২ রানেই সাজঘরে ফিরে গেলেন রাজা।

    সিকান্দার রাজার পর অধিনায়ক ক্রেমারকে খুব বেশি সময় উইকেটে থাকতে দেননি সাকিব। ১২ রান করা অধিনায়ককে রুবেলের তালুবন্দি করেন বাঁহাতি এই স্পিনার। ক্রেমারের বিদায়ের পর প্রতিষ্ঠিত ব্যাটসম্যান হিসেবে উইকেটে ছিলেন মুর। দলের বিপর্যয় এড়াতে লড়াই করছিলেন এই তারকা। তবে দুর্দান্ত এক ইর্কারে তাকে বোল্ড করে সাজঘরে ফেরালেন রুবেল হোসেন। আর পরের বলে চাতারাকে বোল্ড করে হ্যাটট্রিকের আশাও জাগিয়েছিলেন এই পেসার। তবে তা আর হয়নি। শেষ ব্যাটসম্যান মুজারাবানিকে মোস্তাফিজ বোল্ড করলে ১৭০ রানেই থামে জিম্বাবুয়ের ইনিংস।

    Leave a comment

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    পেছালো আইপিএল

    ১৩ মার্চ ২০২০

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
    ১০১১১২১৩১৪
    ১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
    ২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
    ২৯৩০৩১  
    বলাখালে শহীদ ডা. মো. গাজী গোলাম রসুল টিভি কাপ মিনি ফুটবল টুর্নামেন্ট এর উদ্বোধন
    বলাখালে শহীদ ডা. মো. গাজী গোলাম রসুল টিভি কাপ মিনি ফুটবল টুর্নামেন্ট এর উদ্বোধন