• শিরোনাম

    সাক্ষাৎকারে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ডা. জাহিদ হোসেন — গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারে জনমত গঠন করবে ড্যাব

    | ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৭ | ৬:৪৩ অপরাহ্ণ

    সাক্ষাৎকারে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ডা. জাহিদ হোসেন — গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারে জনমত গঠন করবে ড্যাব

    নির্বাচনকালীন সহায়ক সরকার প্রতিষ্ঠার জন্য বিএনপির আন্দোলনের প্রতি সমর্থন জানিয়ে সহায়ক সরকার বা গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের জন্য জনমত গঠনে কাজ করবে বিএনপিপন্থী পেশাজীবী সংগঠন ডক্টরস এসোসিয়েশস বাংলাদেশ (ড্যাব)। সম্প্রতি কক্সবাজারের একটি হোটেল থেকে আমাদের সময় ডটকমকে দেয়া সাক্ষাৎকারে এসব কথা বলেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ও সংগঠনটির মহাসচিব প্রফেসর ডা. এজেডএম জাহিদ হোসেন। কথা বলেন রোহিঙ্গা ইস্যু, রাজনীতির বিষয়ে। সাক্ষাতকারটি নিয়েছেন প্রতিবেদক মাঈন উদ্দিন আরিফ।

    প্রশ্ন : সরকার বিএনপির সহায়ক সরকার মেনে না নিলে ড্যাবের ভূমিকা কি হবে?

    ডা. জাহিদ: এটা তো শুধু বিএনপির দাবি না। এটা সারা দেশের জনগণের দাবি। আর সে জনগণের প্রতিনিধিত্ব করছেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। তাই এ দাবি সরকারকে মেনে নিতে হবে। আর ড্যাব যেহেতু একটা পেশাজীবী সংগঠন তাই জনমত গঠনে ড্যাব কাজ করে যাবে।

    webnewsdesign.com

    প্রশ্ন : খালেদা জিয়া দেশের বাহিরে থাকায় বিএনপিতে সাংগঠনিক স্থবিরতা দেখা দিয়েছে বলে অনেকেই মনে করেন। এবিষয়ে আপনি কি মনে করেন?
    ডা. জাহিদ: এটা ভুল কথা। খালেদা জিয়া দেশের বাহিরে চিকিৎসার জন্য রয়েছেন। তিনি সেখান থেকে সাংগঠনিক নেত্রী হিসেবে প্রতিদিন খোঁজ খবর নিচ্ছেন এবং নির্দেশনা দিচ্ছেন। সেই আলোকে আমার কাজ করে যাচ্ছি। আমি নিজেই ম্যাডাম (খালেদা জিয়া) দেশের বাহিরে যাওয়ার পর ৭টি জেলায় সফর করেছি সংগঠনিক ভাবে। তাই সংগঠন কোন স্থবির হয়ে পড়েনি বরং আগের মতোই আছে।

    প্রশ্ন: বিএনপি জন সম্পৃক্তমূলক কোন ইস্যু কাজে লাগাতে পারছে না কেন?

    ডা. জাহিদ: সরকার আমাদেরকে কোন কর্মসূচি করতে দিচ্ছে না। ঘরোয়া ভাবে করতে হলেও অনুমতি নিতে হয় বিভিন্ন শর্তে। যেটা গণতন্ত্রের চরম পর্যায়ে পোঁছেছে। এ ভাবে একটি দেশ চলতে পারে না। দেশের মানুষ এগুলো থেকে মুক্তি চায়। দেশের মানুষ চায় তাদের ভোটে সররকার নির্বাচিত হোক।

    প্রশ্ন : রোহিঙ্গা ইস্যুতে বড় ধরণের কোন কর্মসূচি দিতে পারেনি বিএনপি । এ বিষয়ে আপনার বক্তব্য কী?

    ডা. জাহিদ: বিএনপি রোহিঙ্গা ইস্যুতে রাজধানী-সহ সারদেশ ১ঘন্টা ব্যাপি মানববন্ধন কর্মসূচি দিয়েছে এবং অনেক জাগায় প্রশাসন এ কর্মসূচি পালন করতে না দিয়ে আমাদের নেতাকর্মীদের গ্রেফতার করেছে। আর বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া বিশ্বের ৫০ রাষ্ট্রের কাছে লিখিত চিঠি দিয়েছে মিয়ানমারের এ ঘটনা অমানবিক এটা বন্ধ করার জন্য সবাই কে এগিয়ে আসতে আহবান জানিয়েছেন।

    প্রশ্ন: রোহিঙ্গা শরণার্থীদের তাদের দেশে ফেরত পাঠতে বাংলাদেশের জন্য কতটুকু চেলেঞ্জিং মনে করছেন আপনি?

    ডা. জাহিদ: শান্তিতে নোবেল বিজয়ী অং সান সুচি এবং তাদের সেনাপ্রধানের যে বক্তব্য দেখলাম। খুবই ভঙ্কর কথা বলেছেন। তাদের সেনাপ্রধান রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে জনমত গঠন করতে বলেছেন। একটা গণতান্ত্রিক সরকার যেখানে প্রতিষ্ঠিত আছে সেখানে সেনাবাহিনীর এই ধরনের বক্তব্যে বোঝা যায় মিয়ানমার এখনও সেনাবাহিনীর কবল থেকে মুক্ত হতে পারেনি। অপর দিকে দিকে অং সান সুচির বক্তব্যও এক। যারা নিজ ভূমি ছেড়েছে তাদের জন্য নিরাপদে ফেরত নেয়া হয়, যারা খুন করেছে তাদের যেন বিচার হয় এই বিষয়গুলো সামনে আনা দরকার।

    প্রশ্ন : রোহিঙ্গাদের জন্য কি স্থায়ী হচ্ছে ড্যাবের ফ্রি চিকিৎসা ক্যাম্প?

    ডা. জাহিদ: আমরা ১৯৭৮ সাল থেকে মিয়ানমারের আরকান থেকে প্রাণ ভয়ে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের এ সেবা দিয়েছি। ৯২ দিয়েছি। এখনো অবার ২০১৭তে এসে দিচ্ছি।

    Leave a comment

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩১৪১৫১৬
    ১৭১৮১৯২০২১২২২৩
    ২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
    ৩১  
    যুবলীগে স্থান পাবে ত্যাগী নেতারা – কেন্দ্রীয় সম্পাদক মাইনুল হোসেন খান নিখিল
    যুবলীগে স্থান পাবে ত্যাগী নেতারা – কেন্দ্রীয় সম্পাদক মাইনুল হোসেন খান নিখিল