• শিরোনাম

    সাকিবের চ্যালেঞ্জ, ‘সেরা পারফরমারের শিরোপা’

    | ০৩ নভেম্বর ২০১৭ | ২:২৯ অপরাহ্ণ

    সাকিবের চ্যালেঞ্জ, ‘সেরা পারফরমারের শিরোপা’

    সাকিবের চ্যালেঞ্জ, ‘সেরা পারফরমারের শিরোপা’

      বিশেষ সংবাদদাতা
    সাকিবের চ্যালেঞ্জ, ‘সেরা পারফরমারের শিরোপা’

    আচ্ছা অধিনায়ক হিসেবে ‘হ্যাটট্রিক চ্যাম্পিয়ন’ মাশরাফি যদি বিপিএলের সফলতম ও সেরা অধিনায়ক হন, তাহলে বিপিএলের এখন পর্যন্ত সেরা পারফরমার কে? ইতিহাস-পরিসংখ্যান নিয়ে যারা বেশি ঘাঁটাঘাঁটি করেন, বিপিএল যাদের পছন্দের আসর- তারা এক মুহূর্ত দেরি না করে বলে দেবেন, কেন সাকিব আল হাসান!

    সত্যিই তাই। ব্যক্তিগত সাফল্যকে মানদণ্ড ধরলে এবং পরিসংখ্যানকে নিয়ামক ভেবে চিন্তা করলে সন্দেহাতীতভাবে এখন পর্যন্ত বিপিএলের সফলতম পারফরমার সাকিব আল হাসান। সাকিব কি করে বিপিএলের সেরা পারফরমার হন? তার কি ক্রিস গেইলের মত এক আসরে এক জোড়া সেঞ্চুরি আছে?

    এ বাঁ-হাতি স্পিনার কি পাকিস্তানের ফাস্ট বোলার মোহাম্মদ স্যামির মত ৩.২ ওভারে ৫ রানে ৬ উইকেটের পতন ঘটিয়েছেন? ব্যাটসম্যান সাকিব কি আগের চার আসরে কোনোবার রান তোলায় সবার ওপরে ছিলেন? কিংবা বোলার সাকিব কি বিপিএলে কখনো সর্বাধিক উইকেট শিকারী হয়েছেন?

    webnewsdesign.com

    shakib

    সবগুলোর উত্তর আসবেন নেতিবাচক। নাহ; সাকিবের বিপিএলে তেমন সাফল্য নেই। এমনকি একবার মাশরাফির নেতৃত্বে ঢাকা গ্ল্যাডিয়েটরস দলের সদস্য হিসেবে চ্যাম্পিয়ন টিমে থাকা ছাড়া বাকি তিনবার শিরোপার স্বাদও পাননি এ বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার।

    প্রায় নয় বছর ধরে সব ফরম্যাটে বিশ্বের এক নম্বর অলরাউন্ডারের তকমা গায়ে আঁটা। ভারতের সাড়া জাগানো আইপিএল, অস্ট্রেলিয়ার বিগ ব্যাশ, নিউজিল্যান্ডের ঘরোয়া টি-টোয়েন্টি, ইংলিশ কাউন্টির টি-টোয়েন্টি, ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগ, শ্রীলঙ্কার সুপার লিগ ও পাকিস্তানের প্রিমিয়ার লিগ মানে টি-টোয়েন্টির সব ফ্র্যাঞ্চাইজি ও বড় আসরে অংশ নেয়া বাংলাদেশের একমাত্র ক্রিকেটার।

    আইপিএলে কোলকাতা নাইটরাইডার্সকে প্রথমবার চ্যাম্পিয়ন করার পিছনে তার রয়েছে দারুন অবদান। বল ও ব্যাট হাতে সময়ের দাবি মিটিয়ে পারফর্ম করতে পারেন বলেই বিশ্বের সব টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টে সাকিবের চাহিদা আকাশ ছোঁয়া।

    ক্রিকেটের সবচেয়ে ছোট ফরম্যাটের সেরা পারফরমারদের তালিকা করতে গেলে সাকিবের নাম থাকবে ওপরের দিকেই। এক কথায় বাংলাদেশের এ বাঁ-হাতি মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান কাম বাঁ-হাতি অর্থোডক্স স্পিনার ‘টি-টোয়েন্টির স্পেশালিস্ট’ পারফরমার।

    shakib

    তার সঙ্গে একদিনের সীমিত ওভারে ক্রিকেটে রান তোলায় যে দু’জনার লড়াই তীব্র, সে সমসাময়িক তামিম আর মুশফিক একবার করে বিপিএলের এক আসরে সর্বাধিক রান সংগ্রহকারী হয়েছেন।

    মুশফিক ২০১৩ সালে দ্বিতীয় আসরে সিলেট রয়্যালসের হয়ে ৪৪০ রান করে টপ স্কোরার হয়েছেন। চিটাগাং ভাইকিংসের হয়ে ১৩ ম্যাচে ৪৭৫ রান করা তামিম গত আসরের সবচেয়ে বেশি রানের মালিক। সাকিব এখন পর্যন্ত তা হতে পারেননি। এমনকি বোলার সাকিবের ঝুলিতে এখন পর্যন্ত এক আসরে সর্বাধিক উইকেট জমা পড়েনি।

    তাহলে তাকে কী করে সেরা ও সফলতম পারফরমার বলা? একটু গোলমেলে লাগছে। তাই তো। নাহ, তা লাগার কোনই কারণ নেই। কারণ, পরিসংখ্যান জানিয়ে দিচ্ছে রান করা ও উইকেট প্রাপ্তিতে এক আসরে সবার ওপরে না থাকতে পারলেও অলরাউন্ডার সাকিব দু’দুবার আসর সেরা হয়েছেন।

    মাশরাফি যেমন বিপিএলের প্রথম তিন আসরের চ্যাম্পিয়ন টিমের ক্যাপ্টেন, একইভাবে পারফরমার সাকিবও বিপিএলের প্রথম দুই আসরের সেরা। ব্যাট ও বল হাতে নজরকাড়া এবং কার্যকর পারফরমেন্স দেখানো সাকিব ২০১২ সালে প্রথম বিপিএলের টুর্নামেন্ট সেরা পারফরমার। খুলনা রয়েল বেঙ্গলসের হয়ে ওই আসরে ব্যাট ও বল হাতে দুর্দান্ত পারফর্ম করেছেন সাকিব।

    shakib

    তার ব্যাট থেকে বেরিয়ে আসে ২৮০ রান। আর ঝুলিতে জমা পড়ে ১৫ উইকেট। সর্বোচ্চ ৮৬*। একইভাবে দ্বিতীয়বারও টুর্নামেন্ট সেরা সাকিব। সেবার সাকিব খেলেন ঢাকা গ্ল্যাডিয়েটরসের হয়ে। ওই আসরে সাকিবের ব্যাট ও বল সমানভাবে জ্বলে ওঠে। ১৬৪.৫০ স্ট্রাইক রেটে ৩২৯ রান ও ১৫ উইকেট দখল করে আসর সেরা পারফরমার পুরষ্কার হিসেবে আবারো গাড়ী জিতে নেন সাকিব।

    কিন্তু তৃতীয় আসরে গিয়ে আর সাফল্যের সে ধারা অব্যাহত থাকেনি। ২০১৫ সালে বিপিএলের তৃতীয় আসরে ব্যাটসম্যান সাকিব সুবিধা করতে পারেননি একদমই। রংপুর রাইডার্সের হয়ে ১১ ম্যাচে করেন সাকুল্যে ১৩৬ রান। ফিফটি নেই।

    সর্বোচ্চ ৩৩; কিন্তু বল হাতে পুষিয়ে দেন। ১১ খেলায় ১৮ উইকেট নিয়ে উইকেট শিকারে চার নম্বর হন সাকিব। সেবার সাকিবকে টপকে আসর সেরা হন ইংলিশ ক্রিকেটার আসহার জাইদি। ২০১৬ সালে চতুর্থ আসরেও চেনা সাকিবের দেখা মেলেনি। একবারের জন্য পঞ্চাশের ঘরে পা রাখা সম্ভব হয়নি। ব্যাটসম্যান সাকিবের সংগ্রহ ছিল ১৪ খেলায় ১৩ ইনিংসে ২২৬। গড় ২০.৫৪। স্ট্রাইকরেট ১২৬.২৫। সর্বোচ্চ ৪১ বল হাতেও সেরা দশে জায়গা হয়নি সাকিবের। মাশরাফির সমান ১৩ উইকেট নিয়ে যৌথভাবে ১২ নম্বর হন।

    তারপরও একটা তৃপ্তি ছিলম। পারফরমার বা অলরাউন্ডার সাকিব আসর সেরা না হতে পারলেও অধিনায়ক সাকিবই হাসেন শেষ হাসি। তার নেতৃত্বেই ঢাকা ডায়নামাইটস প্রথম চ্যাম্পিয়ন হয়। এবার কি করবেন সাকিব?

    আগের বার মোহাম্মদ নবী হয়েছিলেন আসর সেরা পারফরমার। এবার আবার সে পুরনো কৃতিত্ব পুনরুদ্ধার করবেন সাকিব? আবার বিপিএলের সেরা পারফরমারের পুরস্কার হবে বিশ্বসেরা অলরাউন্ডারের?

    Leave a comment

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    পেছালো আইপিএল

    ১৩ মার্চ ২০২০

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০
    ১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
    ১৮১৯২০২১২২২৩২৪
    ২৫২৬২৭২৮২৯৩০  
    বলাখালে শহীদ ডা. মো. গাজী গোলাম রসুল টিভি কাপ মিনি ফুটবল টুর্নামেন্ট এর উদ্বোধন
    বলাখালে শহীদ ডা. মো. গাজী গোলাম রসুল টিভি কাপ মিনি ফুটবল টুর্নামেন্ট এর উদ্বোধন