• শিরোনাম

    সম্পাদকীয়, সাংবাদিক পেটানো সার্জেন্ট : প্রয়োজন দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি

    | ১৩ অক্টোবর ২০১৭ | ৬:০৪ পূর্বাহ্ণ

    সম্পাদকীয়, সাংবাদিক পেটানো সার্জেন্ট : প্রয়োজন দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি

    সাংবাদিক পেটানো সার্জেন্ট : প্রয়োজন দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি

    রাজধানীর মৎস্য ভবনের সামনে এক ফটো সাংবাদিককে মারধর করেছেন মুস্তাইন নামে ট্রাফিক পুলিশের এক সার্জেন্ট। বুধবার বিকেল সাড়ে ৪টায় এ ঘটনা ঘটে। ওই ফটো সাংবাদিকের নাম নাসির উদ্দিন। তিনি মানবজমিন পত্রিকায় কাজ করেন। প্রেস ক্লাব থেকে অফিসে যাওয়ার পথে মৎস্য ভবনের সামনে তাকে আটকে গাড়ির কাগজপত্র দেখতে চান সার্জেন্ট মুস্তাইন। কাগজপত্র ঠিক থাকলেও তার সঙ্গে হেলমেট না থাকায় একটি মামলা দিতে চান সার্জেন্ট। ‘তিন-চারদিন আগে হেলমেট চুরি হয়েছে, বেতন পেলে কিনব’ বলে মামলা না দেয়ার অনুরোধ করলেও সার্জেন্ট তা শোনেননি এবং মামলা দেন।

    এ সময় নাসির ব্যাগ থেকে ক্যামেরা বের করার সঙ্গে সঙ্গে তার জামার কলার ধরে চড়-থাপ্পড় মেরে পুলিশ বক্সে নিয়ে যান ওই সার্জেন্ট। সাংবাদিককে মারধরের ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া এবং এ সংক্রান্ত কমেন্টস দেখলেই বুঝা যায় ট্রাফিক সার্জেন্টের এই দাম্ভিকতা মানুষ ভালভাবে নেয়নি। দুঃখজনক হচ্ছে, নানা রকম ইতিবাচক কাজ করে পুলিশ যখন বাহিনীর সুনাম বৃদ্ধি করছে তখন দু’একজন মুস্তাইনের জন্য গোটা বাহিনীর অর্জন প্রশ্নের মুখে পড়ছে। এদের যত দ্রুত নিভৃত করা যায় ততই মঙ্গল।

    ‘দুঃখজনক হচ্ছে, নানা রকম ইতিবাচক কাজ করে পুলিশ যখন বাহিনীর সুনাম বৃদ্ধি করছে তখন দু’একজন মুস্তাইনের জন্য গোটা বাহিনীর অর্জন প্রশ্নের মুখে পড়ছে। এদের যত দ্রুত নিভৃত করা যায় ততই মঙ্গল।’

    journalist

    ইংরেজি POLICE শব্দের বিশ্লেষণ করলে দাঁড়ায়- P – Polite, O – Obedient, L – Loyel, I – Inteligent, C – Courageous, E – Efficient। এই বহুগুণে গুণান্বিত মানবিক পুলিশই মানুষ জন দেখতে চায়। কিন্তু দুঃখজনক বাস্তবতা হচ্ছে মাঝেমধ্যেই এই প্রত্যাশার ব্যত্যয় ঘটে। যেমনটি ঘটলো সাংবাদিক পেটানোর দুঃখজনক ঘটনায়। ওই সাংবাদিক যদি কোনো বেআইনি কাজ করে থাকেন তাহলে তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নিতে পারে পুলিশ। পুলিশ সেটা নিয়েছেরও। তাহলে মামলা দেয়ার পরও ট্রাফিক সার্জেন্ট কী করে একজন সাংবাদিকের (কিংবা অন্য যে কোনো নাগরিক) গায়ে হাত তোলে সেটি আমাদের বোধগম্য নয়। এই পেশিশক্তি প্রদর্শনীর সাহস তিনি কোথায় পেলেন? এটা কি পেশাগত আচরণের সঙ্গে সঙ্গতিপূর্ণ? অভিযুক্ত সার্জেন্টকে প্রত্যাহার করা হয়েছে। তবে এটা কোনো শাস্তি নয়। দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি না হলে এ ধরনের ঘটনার পুনরাবৃত্তি এড়ানো যাবে না।

    webnewsdesign.com

    দিন দিন পুলিশের কর্মপরিধি বাড়ছে। সেই সঙ্গে বাড়ছে পুলিশের সক্ষমতাও। একটি স্বাধীন দেশের পুলিশ বাহিনী জনবান্ধব হবে-এটি একটি সাধারণ প্রত্যাশা। সেখানে কিছুসংখ্যক পুলিশ সদস্যের সার্জেন্টের বিরুদ্ধে বিভাগীয় তদন্তের পাশাপাশি বিচারবিভাগীয় তদন্ত কমিটি গঠন করে দোষীর শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে। এ ধরনের ঘটনার পুনরাবৃত্তি রোধে নিতে হবে কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা।

    Leave a comment

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১
    ১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
    ১৯২০২১২২২৩২৪২৫
    ২৬২৭২৮২৯৩০  
    হাজীগঞ্জে ছোট বোনের হাতে বড় বোন খুন
    হাজীগঞ্জে ছোট বোনের হাতে বড় বোন খুন