• শিরোনাম

    সবধরণের অরাজকতা দূর করতে আপনারা পুলিশের পাশে থাকবেন — আইজিপি এ কে এম শহীদুল হক

    | ১২ নভেম্বর ২০১৭ | ৫:২০ পূর্বাহ্ণ

    সবধরণের অরাজকতা দূর করতে আপনারা পুলিশের পাশে থাকবেন — আইজিপি এ কে এম শহীদুল হক

    চাঁদপুর হাসান আলী মাঠে কমিউনিটি পুলিশিং সমাবেশে
    খালেদা জিয়া রোহিঙ্গাদের ত্রাণ দিতে গিয়ে নিজের গাড়ি নিজে ভাঙ্গে
    ——– মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া চৌধুরী
    সবধরণের অরাজকতা দূর করতে আপনারা পুলিশের পাশে থাকবেন
    ——– আইজিপি এ কে এম শহীদুল হক
    চাঁদপুর প্রতিবেদক॥


    আমরা শেখ হাসিনার পাগল তাই দেশের উন্নয়নের কথা যেখানে যাই সেখানেই বলি। আর খালেদা জিয়া রোহিঙ্গাদের ত্রাণ দিতে গিয়ে নিজের গাড়ি নিজে ভাঙ্গে। সাংবাদিকদের পেটায়। আর বলে শেখ হাসিনার কর্মীরা এসবকাজ করছে। তিনি মানুষের সাথে সেবার নামে তামাশা করছে। শেখ হাসিনা সরকার উন্নয়নের সরকার । আজ ঘরে ঘরে বিদ্যু সহ সকল কিছুই পৌছছে । এ উন্নয়নের ধারকে অব্যহুত রাখতে নৌকায় ভোট দিতে হবে। তিনি শনিবার দুপুরে চাঁদপুর হাসান আলী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে কমিউনিটি পুলিশিং সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে আরো বলেন সন্ত্রাস ও জঙ্গীবাদ দমনে সকলকে সচেতন হতে হবে।

    আমরা পুলিশের পাশে আছি। সন্ত্রাস দমনে আপনার নিশ্চিতে কাজ করে যাবেন। কমিউনিটিং পুলিশেংয়ের কাজ সুন্দরভাবেই এ জেলা হচ্ছে । কমিউনিটি পুলিশিংয়ের কাজে সকলকে সহযোগিতা করতে হবে ।
    কমিউনিটি পুলিশিং সমাবেশে প্রধান আলোচকের বক্তব্যে বাংলাদেশ পুলিশের মহাপরির্দশক এ কে এম শহীদুল হক বলেন দেশে একটি বিশেষ মহল পুলিশের কাজে বিভ্রান্তি সৃষ্টি করছে । তারা পুলিশের কাজ নিয়ে বির্তক সৃষ্টি করতে চায়। তারা চায় সরকারের পতন হোক। দেশে জঙ্গীবাদ সৃষ্টি হোক। জঙ্গীদের নেটওয়ার্ক আমরা বের করেছি। ২৭টি অভিযান করেছি। আমাদের সফলতা আছে। জঙ্গীদের সারেন্ডার করার জন্যে বারবার অনুরোধ করেছি।

    webnewsdesign.com

    পৃথিবীর কোথাও জঙ্গীরা নেকুজেশন করে না। কিন্তু আমরা তাদের বুঝিয়ে সারেন্ডার করিয়েছি। অথচ একটি বিশেষ মহল এ নিয়ে প্রশ্ন তুলছে।আইজিপি আরো বলেন, কে কোনো দলের কোন গোষ্ঠির তা না দেখে আমার তাদের বিরুদ্ধে কাজ করে যাচ্ছি। পুলিশ রাজনৈতিক প্রতিহিংসার শিকার। ২০১৩ সালে পুলিশকে টার্গেট করে ১৬জন পুলিশ হত্যা করেছে। তাদের উদ্দেশ্যে ছিলো পুলিশের মাঝে ভীতি সঞ্চার করা। তারা জয়ী হবে, সরকারের পতন হবে। আমরা তা হতে দেইনি। ভবিষ্যতে আমরা জনগণকে নিয়ে সন্ত্রাস মোকাবেলা করবো। সবধরণের অরাজকতা দূর করতে আপনারা পুলিশের পাশে থাকবেন।

    জনগণ পুলিশের সাথে সরাসরি যোগাযোগ রাখলে দালাল টাউটরা সুবিধা নিতে পারবে না। মানুুষের সাথে পুলিশের কাজের দূরত্ব থাকলে ঠিক ভাবে কাজ করা যাবে না। জনগণ ও পুলিশের মধ্যে সেতু বন্ধন সৃষ্ঠি করতেই কমিউনিটি পুলিশিং গঠন করা হয়েছে। পুলিশের প্রতি আস্থার পরিবশে সৃষ্টি মাধ্যম হিসেবে কমিউনিটি পুলিংশ ব্যবস্থা কার্যকর ভূমিকা পালন করছে।


    এসময় অন্যান্যের মাঝে বক্তব্য রাখেন, চট্ট্রগাম রেঞ্জের ডিআইজি ড. এস এম মনিরুজ্জামান, ডিআইজি এডমিনিষ্ট্রিটিশন চৌধুরী আবদুল্লাহ আল মামুন, চাঁদপুরের পুলিশ সুপার শামসুন্নাহার, কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগের ত্রান ও সমাজকল্যান সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক ( রাজস্ব ) মোঃ মাসুদ হোসেন, চাঁদপুর জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ¦ ওচমান গনি পাটওয়ারী, চাঁদপুর জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক আবু নঈম পাটওয়ারী দুলাল, জেলার ৮ উপজেলার পৌর মেয়রদের পক্ষে হাজীগঞ্জ পৌরসভার মেয়র আ.স.ম মাহবুব উল আলম লিপন, চাঁদপুর জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কমান্ডার ও যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্দা এম এ ওয়াদুদ, স্বাধীনতাপদক প্রাপ্ত নারী মুক্তিযোদ্ধা ডাঃ সৈয়দা বদরুন নাহার, চাঁদপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি শরীফ চৌধুরী, কমিউনিটি পুলিশিংয়ের উদযাপন পরিষদের আহবায়ক জি এম শাহাবুদ্দিন প্রমূখ।

    এ সময় উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন, প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ার সংবাদকর্মী সহ চাঁদপুর জেলা ও উপজেলা কমিউিনিটি পুলিশিংয়ের কমকর্তাগন ।

     

    Leave a comment

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩১৪১৫১৬
    ১৭১৮১৯২০২১২২২৩
    ২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
    ৩১  
    হাজীগঞ্জে ছোট বোনের হাতে বড় বোন খুন
    হাজীগঞ্জে ছোট বোনের হাতে বড় বোন খুন