• শিরোনাম

    ষড়যন্ত্র মোকাবেলা ও উন্নয়নের হাতিয়ার সমবায়

    | ০৪ নভেম্বর ২০১৭ | ৩:১৯ অপরাহ্ণ

    ষড়যন্ত্র মোকাবেলা ও উন্নয়নের হাতিয়ার সমবায়

    ৪৬তম জাতীয় সমবায় দিবস ও জাতীয় সমবায় পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে
    ষড়যন্ত্র মোকাবেলা ও উন্নয়নের হাতিয়ার সমবায়
    ————— মেজর অব. রফিকুল ইসলাম বীর উত্তম এমপি

    নিজস্ব প্রতিবেদক॥
    সমবায়ের শক্তি ব্যবহার করেই দেশে অর্থনৈতিক উন্নয়ন তড়ান্বিত করার পাশাপাশি সমাজ থেকে অনাচার ও কলুষ দূর করা সম্ভব বলে মনে করেন হাজীগঞ্জ শাহরাস্তি নির্বাচনীয় এলাকার সাংসদ মেজর অব. রফিকুল ইসলাম বীর উত্তম এমপি। সেই সঙ্গে সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদের মতো দেশবিরোধী চক্রের মোকাবেলায়ও সমবায় হাতিয়ার হতে পারে বলে মনে করেন তিনি। গতকাল শনিবার সকালে হাজীগঞ্জ উপজেলা কার্যালয়ে ৪৬তম জাতীয় সমবায় দিবস ও জাতীয় সমবায় পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি। তিনি বক্তব্যে আরো বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সমবায়ের মাধ্যমে দেশের অর্থনৈতিক ও সামাজিক উন্নয়নের স্বপ্ন দেখেছিলেন। তিনি সংবিধানে সমবায়কে মালিকানার দ্বিতীয় খাত হিসেবে স্বীকৃতি দিয়েছিলেন।

    বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন বাস্তবায়ন করছে তার মেয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। দেশে বর্তমানে এক লাখ ৭৫ হাজার ৭৭০ টি নিবন্ধিত সমবায় প্রতিষ্ঠানে প্রায় এক কোটি ছয় লক্ষ ৯০ হাজার ৭২৮ জন সদস্য রয়েছে। সমবায় সমিতিগুলোর কার্যকরী মূলধন প্রায় ১৪ হাজার ৫৪ কোটি টাকা এবং মোট সম্পদের পরিমাণ প্রায় সাত হাজার ৩২ কোটি টাকা। এ সকল সমবায়ের মাধ্যমে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে আট লাখ ২৬ হাজার ৭২৮ জন লোকের কর্মসংস্থান হয়েছে। সরকার আশ্রয়ণ প্রকল্পের আওতায় ছিন্নমূল মানুষদের সমবায়ের ভিত্তিতে সংগঠিত করে গৃহ ও ক্ষুদ্র ঋণ প্রদানের মাধ্যমে পুনর্বাসনের ব্যবস্থা করেছে। এ প্রকল্পের মাধ্যমে ৯৩ হাজার ১১৫ টি পরিবারকে আশ্রয় দেয়া হয়েছে। সাথে সাথে তাদেরকে প্রয়োজনীয় প্রশিক্ষণ ও প্রায় ১০৩ কোটি টাকা ঋণ সহায়তা প্রদান করে স্বাবলম্বী হিসেবে গড়ে তোলা হচ্ছে।

    এ উদ্যোগকে আরও সম্প্রসারিত করে দেশের প্রতিটি ঘরহীন মানুষকে আশ্রয়ের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। গ্রামে দারিদ্র্য নির্মুলে সমবায় দর্শনকে ভিত্তি করেই ‘একটি বাড়ি একটি খামার’ প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হচ্ছে জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, এ প্রকল্পের আওতায় সারাদেশে এ পর্যন্ত ৫৭ হাজার ১৪৫ টি সংগঠন সৃষ্টি করে হতদরিদ্র মানুষের দারিদ্র্য বিমোচন করার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। এ সকল সংগঠনের উদ্যোগে ইতোমধ্যে প্রায় তিন হাজার ৮০০ কোটি টাকা মূলধন সৃষ্টি হয়েছে। এ উদ্যোগের ফলে দেশের চরম দারিদ্র্যের হার উল্লেখযোগ্য পরিমাণ হ্রাস পেয়েছে। সমবায়ের মাধ্যমে সরকার দুগ্ধ খাতের উন্নয়ন এবং মাংসের চাহিদা পূরণের প্রকল্প নিয়েছে। সমবায় অধিদপ্তর ৬৮ কোটি টাকা ব্যয়ে প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। এতে সুবিধাবঞ্চিত নারী, বেকারকের কর্মসংস্থান বৃদ্ধি পেয়েছে। দেশের ক্রমবর্ধমান উন্নয়ন ও অগ্রগতিকে বাধাগ্রস্ত করতে একটি বিশেষ মহল সক্রিয় রয়েছে। জঙ্গিবাদ, সন্ত্রাসী কর্মকান্ড ও নানা কুটকৌশলের মাধ্যমে দেশকে অস্থিতিশীল করার চক্রান্ত চলছে। সারাদেশের এক কোটি সমবায়ী এসব অপচেষ্টার বিরুদ্ধে জনমত তৈরি করে তা প্রতিহত করতে হবে।

    webnewsdesign.com

    বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, হাজীগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ¦ অধ্যাপক আবদুর রশিদ মজুমদার, পৌর মেয়র আ.স.ম মাহবুব উল আলম লিপন। উপজেলা নির্বাহী অফিসার বৈশাখী বড়–য়ার সভাপতিত্বে ও উপজেলা সমবায় অফিসার আলো রানী’র উপস্থাপনায় অনুষ্ঠিত অনুষ্ঠানে এ সময় উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক গাজী মো. মাইনুদ্দীন, ১নং রাজারগাঁও ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ¦ মো. আবদুল হাদী, ২নং বাকিলা ইউপি চেয়ারম্যান মো. মাহফুজুর রহমান ইউছুফ পাটওয়ারী, ৭নং বড়কুল পশ্চিম ইউপি চেয়ারম্যান গাজী মো. মনির হোসেন, জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান হাজী জসিম উদ্দিন, বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি রোটা. আহসান হাবিব অরুন, সাধারণ সম্পাদক ও শহর যুবলীগের আহবায়ক হায়দার পারভেজ সুজন, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মোহাম্মদ শাহ্ রেজা আশ্রাফী, উপজেলা প্রকৌশলী ফুয়াদ আহসান, এ এস এম মঞ্জুর আহমেদ সেলিম প্রমূখ।

    Leave a comment

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০
    ১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
    ১৮১৯২০২১২২২৩২৪
    ২৫২৬২৭২৮২৯৩০  
    দেশ ছাড়িয়ে বিদেশেও যাচ্ছে মতলবের ক্ষীর
    দেশ ছাড়িয়ে বিদেশেও যাচ্ছে মতলবের ক্ষীর