জায়গা পরিবর্তন আর সংখ্যা বাড়তে থাকায় রোহিঙ্গারা ছেড়ে যাওয়ার পর ন্যাড়া পাহাড়ের সংখ্যা বাড়ছে কক্সবাজার এবং বান্দরবানে। নতুন ক্যাম্প গড়ার সঙ্গে সঙ্গে সবুজ পাহাড় আর সবুজ থাকছে না। ওই ক্যাম্প ছেড়ে অন্য পাহাড়ে যাওয়ায় ন্যাড়া হচ্ছে আরেক পাহাড়।

বান্দরবানের ঘুনধুম এলাকা দিয়ে আসা রোহিঙ্গা উদ্বাস্তুদের একটি অংশ প্রথমে ক্যাম্প করেছিল এ পাহাড়ে। পরে উখিয়ার কুতুপালং-বালুখালীর দিকে চলে যাওয়ার পর এমনই অবস্থা হয়েছে এসব পাহাড়ের।

ওই পাহাড় ছেড়ে আসা রোহিঙ্গাদের অনেকেই আশ্রয় নিয়েছিল উখিয়ার বালুখালীর এ ক্যাম্পে। সেখান থেকেও চলে যেতে হয় কক্সবাজার টেকনাফ সড়কের এপার থেকে ওপারে। স্থান বদলের সরকারি সিদ্ধান্তে কয়েকদিনের মধ্যে এভাবে ফাঁকা হয়ে যায় পাহাড়। এ পাহাড়েরই পেছনের অংশের মতো সবুজ ছিল সামনের অংশও।

webnewsdesign.com

৮৪ হাজার পরিবারের ছয় লাখের মতো রোহিঙ্গার জন্য ১৪ হাজার অস্থায়ী ঘর তোলার যে সিদ্ধান্ত হয়েছে তা দ্রুত বাস্তবায়িত না হলে পাহাড় ফাঁকা হতেই থাকবে।

স্থানীয়রা মনে করেন, এখনই বিকল্প উদ্যোগ না নিতে পারলে ফাঁকা হতে থাকবে এক পাহাড় থেকে অন্য পাহাড়।

বিস্তারিত দেখুন ভিডিও রিপোর্টে: