• শিরোনাম

    ইভটিজিংয়ের প্রতিবাদ করায় উল্টো আমাদের বিরুদ্ধে ইভটিজিংয়ের অভিযোগ– ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি মো. মোস্তফা কামাল

    | ১২ নভেম্বর ২০১৭ | ৬:২৪ পূর্বাহ্ণ

    ইভটিজিংয়ের প্রতিবাদ করায় উল্টো আমাদের বিরুদ্ধে ইভটিজিংয়ের অভিযোগ– ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি মো. মোস্তফা কামাল

    সংবাদ সম্মেলনে ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি মো. মোস্তফা কামাল
    ইভটিজিংয়ের প্রতিবাদ করায় উল্টো আমাদের বিরুদ্ধে ইভটিজিংয়ের অভিযোগ
    নিজস্ব প্রতিবেদক॥


    হাজীগঞ্জে ৯নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি মো. মোস্তফা কামাল তার ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ও ওয়ার্ড আওয়ামলীগের সাধারণ সম্পাদক আজাদ মজুমদারের বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন করেছেন। গতকাল শনিবার (১১ নভেম্বর) বিকেলে আলীগঞ্জ তার কার্যালয়ে এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় তিনি বলেন আমরা ইভটিজিংয়ের প্রতিবাদ করায় উল্টো আমাদের বিরুদ্ধে ইভটিজিংয়ের অভিযোগ করেছে।
    সংবাদ সম্মেলনে মোস্তফা কামাল বলেন, গত কয়েক দিন যাবত আমাদের ৯নং ওয়ার্ডে একটি তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে যুবলীগ ও ছাত্রলীগের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে এ বিষয়টি সাংবাদিকরা কম-বেশী জানেন।

    প্রশাসনসহ ও পৌরসভাবাসীকে মূল সত্য কথাটি আপনাদের মাধ্যমে জানানোর জন্যেই আমি সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেছি। মোস্তফা কামাল বলেন, গত রবিবার (৫ নভেম্বর) হাজীগঞ্জ মডেল পাইলট হাই স্কুল এন্ড কলেজ এর পরীক্ষার্থীগণ পরীক্ষা শেষে বাড়ি ফেরার জন্য কংগাইশ মাদ্রাসা বাড়ীর দেলোয়ারের ছেলে শরীফের অটোরিক্সা করে ৯নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আবুল কালাম আজাদের মেয়ে’সহ দুজন মেয়ে একত্রে রওনা দিলে হঠাৎ করে স্কুলের উত্তর পাশের কম্পিউটার দোকানদার জয় নামীয় ছেলেটি অটো ড্রাইভ্রার শরী কে গাড়ী থামাতে বলে মেয়েদের সাথে কথা আছে, তাহার কথা না শুনে ড্রাইভার গাড়ীটা নিয়ে চলে আসে, পরবর্তীতে অটো ড্রাইভার হাজীগঞ্জ বাজারে যাওয়ার পথে, কম্পিউটার দোকানদার জয় অটো ড্রাইভার কে অতর্কিতভাবে মারধর করে এবং হুমকি দেয় বলে কংগাইশের যাহারা আসবে এবং এখান দিয়ে যাবে তাদেরকে মারধর করবে। অটো ড্রাইভার শরীফ এলকায় এসে তাহার বাড়ীর কয়েকজন জানায়। তারা বিষয়টি কাউন্সিলর আজাদের ভাই শাহাদাত মজুমদারকে জানায়।

    webnewsdesign.com

    যাহার উত্তরে উনি বলেন টোরাগড়ের ঐ ছেলের নাম সংগ্রহ করে আমারা তাহার বিরুদ্ধে মামলা করব বলে তাদেরকে বিদায় করে দেয়। মোস্তফা দাবী করেন, আমার ছেলে সহ মো. সজীব, মো. সানি কেন শাহাদাত মজুমদারের কাছে উক্ত বিষয়ে বিচার দিয়েছে এজন্য টোরাগড়ের ঐ ছেলের পক্ষ নিয়ে আজাদ কাউন্সিলরের ছেলে মহিউদ্দিন রাফি এবং ঐ বাড়ীর মানিকের ছেলে মেহরাজ সহ দুইজনে মিলে আলীগঞ্জ হযরত মাদ্দাখাঁ (রা.) মসজিদ গেইটের পূর্ব পাশে রাত ৯.০০টায় ঐ সজীব কে মারিতেছে এমতাবস্থায় আমার ছেলে রহমত উল্লাহ আমার দোকান বন্ধ করে বাড়ী যাওয়ার পথে দেখিয়া তাহাদের মারামারি ছোটাইয়া দিয়া ওয়ার্ড যুবলীগ সভাপতি মাসুদ রানা ও আমার ছেলে রাফির পিতা কাউন্সিলর কে বালুর ঘাটে গিয়ে জানালে কাউন্সিলর বলেন, ব্যাটা মোস্তাফার ছেলে আমার প্রতিপক্ষ হয়ে এখানে আসলি কেন? বলে অতকির্ত ভাষায় গালমন্দ করে। আমাকে, আমার ছেলেকে ও মাসুদ রানাকে অসম্মানজনক ও হেও প্রতিপণ্য করে তাড়িয়ে দিয়েছে।

    তিনি বলেন, একজন ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সেক্রেটারীর এমন নেককার জনক ব্যবহারের কারণে অতিষ্ট হইয়া ক্ষোভের মাথায় সোমবার রাত্রে ০৯ টার সময় এলাকার উত্তেজিত জনতা তাহাদের উপর ক্ষিপ্ত হলে প্রশাসন এসে শান্ত করে। উক্ত ঘটনাকে কেন্দ্র করে রাত ১০ টার সময় ০৯নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আবুল কালাম আজাদের ছেলে মহিউদ্দিন রাফি, মানিকের ছেলে মিরাজ ও কবিরের ছেলে সজীব সহ টোরাগড় এর অজ্ঞাত নামা ২০/২৫ জন সহ রড, হকষ্টিক, দেশীয় অস্ত্র-সহস্ত্র বতলে থাকা পেট্টোল নিয়ে আমার ঘর বাড়ি জ্বালানোর জন্য এবং আমার ছেলে সহ আমাকে খুন করার জন্য আমার বাড়ির সামনে গেলে আমার এলাকার লোকজন দাওয়া করলে তারা চলে যায়।
    এ বিষয়ে আমি নিজে বাদী হয়ে হাজীগঞ্জ থানায় একটি অভিযোগ করেছি। তাহারা ও ইসমাঈল হোসেন রুবেল বাদী হয়ে একটি অভিযোগ করেছে। বিষয়টি মুরব্বিগণ কাউন্সিলরের সাথে বৈঠক করে সিদ্ধান্ত দেন গত ০৯/১১/২০১৭ইং, তারিখ- ০২ টায় সালিশ করে উক্ত বিষয় সুরহা করে দিবে। কিন্তু আজাদের অসহযোগিতার কারণে তা সমাধান হয়নি।
    মোস্তফা বলেন গত বুধবার (৮ নভেম্বর)/ মুরুব্বিদেরকে অবমূল্যায়ন করে কাউন্সিলরের পি.এস. ইসমাঈল হোসেন রুবেল ঐ সানিকে এবং আলাউদ্দিনকে মারধর করেন। যাহা সবাই অবগত আছেন।

    তিনি বলেন, বিষয়টি নিষ্পত্তি জন্য আমাদের পৌরসভার মেয়র ও পৌর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক হাজী সৈয়দ আহমেদ খসরু এবং প্যানেল মেয়র রায়হানুর রহমান জনি দায়িত্ব নিয়ে উভয় পক্ষকে পৌরসভায় ডাকেন। আমি ও আমার লোকজন সহ যথাসময়ে হাজির হলেও তাহারা হাজির হয় নাই। তিনি সংবাদ সম্মেলনে দাবী করেন, (১১ নভেম্বর) কাউন্সিলর আবুল কালাম আজাদ এনায়েতপুর ও কংগাইশের কিছু সংখ্যক লোক ডেকে আমার বিরুদ্ধে উপস্থিত স্বাক্ষর নিয়া আমার বিরুদ্ধে বিভিন্ন মানহানিকর ঘটনার মতো বিভিন্ন ষড়যন্ত্র করার পায়তারায় লিপ্ত রয়েছে।

    সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, আইন বিষয়ক সম্পাদক ইব্রাহী খলিল, পৌর আওয়ামীলীগের সদস্য আবদুস ছাত্তার মাস্টার, শফিক ম্যানেজার, আজিজুর রহমান, ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি বাচ্চু মিয়া মিজি, যুগ্ম সম্পাদক খোকা, ওয়ার্ড আওয়ামী যুবলীগের সভাপতি মাসুদ খান, সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন প্রমূখ।

     

    Leave a comment

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১
    ১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
    ১৯২০২১২২২৩২৪২৫
    ২৬২৭২৮২৯৩০  
    বোকরা নিষিদ্ধ! হাজীগঞ্জে বোরকা পরার অপরাধে আধাঁঘন্টা খাতা আটক রাখার অভিযোগ
    বোকরা নিষিদ্ধ! হাজীগঞ্জে বোরকা পরার অপরাধে আধাঁঘন্টা খাতা আটক রাখার অভিযোগ