• শিরোনাম

    আওয়ামীলীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী আলহাজ¦ মো. সফিকুল আলম ফিরোজ

    | ১৪ মার্চ ২০১৮ | ৫:৫৮ পূর্বাহ্ণ

    আওয়ামীলীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী আলহাজ¦ মো. সফিকুল আলম ফিরোজ

    আওয়ামীলীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী আলহাজ¦ মো. সফিকুল আলম ফিরোজ
    হাজীগঞ্জ-শাহরাস্তি’র জনগন এখন পরিবর্তন চায় আর আমরাও পরিবর্তন চাই
    আজকের দেশকন্ঠ প্রতিবেদক॥
    আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনের বাকি ১০ মাস। এরই মধ্যে নির্বাচনী হাওয়া বইতে শুরু করেছে চাঁদপুর-৫ (হাজীগঞ্জ-শাহরাস্তি) নির্বাচনীয় এলাকায়। এ আসনে বিএনপির একক প্রার্থীর ঘোষনা থাকলেও আওয়ামীলীগের বর্তমান সাংসদ মেজর অব. রফিকুল ইসলাম বীর উত্তম ছাড়া আরো ৮ জনের রয়েছে মনোনয়ন প্রত্যাশী।

    এ ৯ জনের মধ্যে মেজর অব. রফিকুল ইসলাম ছাড়া বাকী ৮জনই পরিবর্তন চেয়ে আসছেন দীর্ঘদিন। আর এ পরিবর্তনের হাওয়া গত দুই বছর যাবৎ হাজীগঞ্জ-শাহরাস্তির বিভিন্ন দলীয় সমাবেশ ও রাষ্ট্রীয় অনুষ্ঠান গুলোতে দেখা যায়। এ আসন থেকে মনোনয়ন প্রত্যাশী শাহরাস্তির কৃতি সন্তান, ঢাকা বিশ^বিদ্যালয় ও ঢাকা মহানগরের সাবেক ছাত্রলীগ নেতা, কৃষকলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য, ঢাকা কলাবাগান ক্লাবের দীর্ঘদিনের সভাপতি, ধানমন্ডি ক্লাবের দু বারের সাবেক সভাপতি, ঢাকাস্থ চাঁদপুর জেলা কমিটির সদস্য ও জননেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার একান্ত আস্থাবাজন নেতা হাজীগঞ্জ-শাহরাস্তি নির্বাচনী এলাকার মনোনয়ন প্রত্যাশী আলহাজ¦ মো. সফিকুল আলম ফিরোজ।
    গত ৮ মার্চ হাজীগঞ্জ রামপুর উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে আওয়ামীলীগের এক জনসভায় মিলিত হন আওয়ামীলীগ থেকে মনোনয়ন প্রত্যাশী ৭ নেতা।

    সে খানে বক্তব্য রাখেন আওয়ামীলীগ নেতা সফিকুল আলম ফিরোজ।
    তিনি তার বক্তব্যে বলেন, হাজীগঞ্জ শাহরাস্তির জনগন এখন পরিবর্তন চায়। আর আমরাও পরিবর্তন চাই। তিনি বর্তমান সাংসদকে উদ্দেশ্য করে বলেন আপনি তো দীর্ঘ দিন এ আসনের এমপি ছিলেন এবং আছেন, এবার নতুনদের সুযোগ দিন।

    আগামী নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন পাওয়ার শতভাগ বিশ্বাসী ৮ প্রার্থীর সমর্থকরা। সবাই দলীয় হাই কমান্ডের নির্দেশ পেয়ে গণসংযোগ নেমেছেন। ইতিমধ্যে হাজীগঞ্জ-শাহরাস্তির আওয়ামীলীগ রাজনীতি অঙ্গনে নেতা-কর্মীদের মাঝে নানা জল্পনা-কল্পনা চলছে। বহুল ব্যবহৃত সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইস বুকে চলছে প্রার্থীদের পক্ষে নানান প্রচারণা।
    মনোনয়ন প্রত্যাশী আওয়ামীলীগ নেতা আলহাজ¦ মো. সফিকুল আলম ফিরোজ জানান, দলের সভানেত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা দলকে সু-সংগঠিত করতে প্রতিটি নির্বাচনে তরুন প্রজন্মকেই বেশি প্রাধান্য দিচ্ছেন।

    এছাড়া চাঁদপুর জেলা আওয়ামীলী থেকে শুরু করে কেন্দ্রিয় আওয়ামীলীগ পর্যন্ত সাংগঠনিক কাজে নিজের যোগ্যতা ও দক্ষতা প্রমাণ করতে পেরেছি। হাজীগঞ্জ-শাহরাস্তি বাসীও পরিবর্তন যাচ্ছেন। হাজীগঞ্জ-শাহরাস্তির মানুষের দোয়া ও ভালবাসায় এগিয়ে যাচ্ছি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভালবাসায় মনোনয়ন পাওয়ার শতভাগ প্রত্যাশা রয়েছে। আর দলীয় মনোনয়ন পেলে হাজীগঞ্জ-শাহরাস্তিতে নৌকার অভাবনীয় বিজয় নিশ্চিত হবে ইনশাল্লাহ।

    তিনি আরো বলেন, আমি কারও হাত ধরে রাজনীতি করি না। বঙ্গবন্ধুর আদর্শ বুকে লালন করে আওয়ামীলীগের সাথে আছি, থাকবো। প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা থেকে শুরু করে দলের সকল নেতৃবৃন্দই আমাকে চিনেন। আমার সম্পর্কেও জানেন। কখনও লোভ-লালসা বা নোংরা রাজনীতিতে বিশ্বাস করি না। অন্যায়ের কাছে মাথানত করিনি করবোও না।

    হাজীগঞ্জ-শাহরাস্তি আওয়ামীলীগ সম্পর্কে তিনি বলেন, ১৯৭৬ সালে ছাত্রলীগ করি। তারপর থেকে জীবন বাঁজি রেখে দেশ মাতৃকার জন্য নিজেকে বিলিয়ে দেই। জীবনের যা করেছি তার সবটুকুই হাজীগঞ্জ-শাহরাস্তির উন্নয়নে উৎসর্গ করেছি।
    হাজীগঞ্জ-শাহরাস্তির তৃণমূল নেতাকর্মীরা বলেন, আলহাজ¦ মো. সফিকুল আলম ফিরোজ আওয়ামী লীগের একজন পরীক্ষিত ত্যাগী নেতা। প্রতিটি গণতান্ত্রিক আন্দোলন-সংগ্রামে তার অবদান রয়েছে। তৃণমূল নেতাকর্মীরা তাকে সংসদে দেখতে চায়।

    আলহাজ¦ মো. সফিকুল আলম ফিরোজ আরো বলেন, আমি আওয়ামীলীগ থেকে মনোনয়ন প্রত্যাশী। যদি আওয়ামীলীগ আমাকে মনোনয়ন দেন তাহলে আসন্ন নির্বাচনে অংশগ্রহণ করব। আর যদি না দেন, তাহলে মনোনয়ন প্রত্যাশী আরো ৭জন রয়েছে তাদের সাথে আছি এবং থাকবো। তবে আমার নিবার্চনীয় এলাকার জণসাধারণের কল্যাণে ও এলাকার উন্নয়নের অগ্রগতি বাড়ানোর জন্য আমি অবশ্যই আসন্ন নির্বাচনে অংশগ্রহণ করব সেটাই প্রকৃত সত্য। আমি এমপি নির্বাচিত হলে সকলের পাশে থেকে এ আসনের সকল উন্নয়নের জন্য কাজ করে যাব।

    Leave a comment

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১
    ১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
    ১৯২০২১২২২৩২৪২৫
    ২৬২৭২৮২৯৩০  
    বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডে চাকরি
    বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডে চাকরি